রবিবার, জুলাই 14, 2024
Google search engine
হোমসর্বশেষদারবিশের ডায়েরি

দারবিশের ডায়েরি

কবি এনামূল হক পলাশ অনুবাদিত মাহমুদ দারবিশের দিনলিপি

একটি ঈগল নিচুতে উড়ছে

কবিতার ভেতরে ভ্রমণকারী

কবিতায় ভ্রমণকারীকে বলছিলো:

‘আর কতদূর যেতে হবে?’

‘সর্বদিকে’

‘তাহলে যাও, এমনভাবে যাও

যেন তুমি এসেছো বা আসো নি’

‘যদি যাওয়ার জন্য এতগুলো পথ না থাকত,

আমার হৃদয় ঝুঁটিত্তয়ালা হুপু পাখি হয়ে যেত

আর আমি পথ পেতাম’

‘তোমার হৃদয় ঝুঁটিত্তয়ালা হুপু পাখি হলে

আমি তাকে অনুসরণ করতাম’

“কে তুমি? তোমার নাম কি?”

‘ভ্রমণে আমার কোনো নাম নেই’

‘আমি কি আবার তোমাকে দেখতে পারব?

হ্যাঁ। দুই পাহাড়ের চূড়ায়

উচ্চ প্রতিধ্বনির সাথে আর তাদের গভীর খাদে,

আমি তোমাকে দেখবই’

‘তারপর আমরা কিভাবে খাদে ঝাঁপ দিব

যদি আমরা পাখি না হই?’

আমরা গান গাইব:

“কারা আমাদেরকে দেখতে পারে

যাদেরকে আমরা দেখতে পারি না?

আর আমরা যাদেরকে দেখি

তারা আমাদেরকে দেখতে পারে না”

“তারপর কি?”

“আমরা গান গাইব না”

“তারপর কি?”

তাহলে তুমি আমাকে জিজ্ঞাসা করো

আর আমি তোমাকে জিজ্ঞাসা করি:

“আর কতদূর যেতে হবে?”

“সর্বদিকে”

“ভ্রমণকারীর আগমনের জন্য

সকল পথ কি যথেষ্ট?”

“না। কিন্তু আমি দেখতে পাচ্ছি

একটা কল্পিত ঈগল

আমাদের উপরে চক্কর দিচ্ছে,

নিচুতে উড়ছে!”

অনুরূপ সংবাদ

জনপ্রিয় পোস্ট